দীপ্তেন্দু জানা

দীপ্তেন্দু জানার কবিতাগুচ্ছ


যা কিছু খনিজ

১.

গত জন্মের কান্না গুলো
জমা ছিল আপনারই কাছে
আপনার আশ্চর্য ব্রণ চাইতে আবার জন্মাইনি
অনুষ্কা,
এই জন্মে আমার কান্না গুলো ফেরত নিতে এলাম

 

২.

শুধু একটি হাত- সেও এক আস্ত শরীর
শুধু একটি হাত- তারও আস্ত মন আছে

একটি হাতের ভেতর
অজস্র কান্না

আশ্চর্য সব কান্না দিয়ে
বানিয়েছি একটি তানপুরা

একটি হাত আর ছোঁয়াচে তানপুরার মাঝে
কি উহ্য থাকে
অনুষ্কা জানে সব উড়ন্ত পাথর

 

 

৩.

এত ভাষা – তবু ভাষা নেই

যে শব্দেই ভরতে যাই
ঘট উপচে ওঠে

ওই মেটাফিজিক্যাল হাসির সামনে
প্রতিটি বাক্য এত অসহায়
অনুষ্কা
নিজেকে অক্ষম অনুবাদক মনে হয়

 

 

৪.

কী ভীষণ পেতে চাই – পেতে চাই না তাই

জলের উপর শুকনো বাঁশপাতা
বাঁশপাতার উপর
প্রাণপণ
পিঁপড়ে
দেখি… দেখি…

একটা ঘূর্ণি
ঘূর্ণির ভেতর আপনার মুখ

কী ভীষণ পেতে চাই- পেতে চাই না তাই
পেয়ে গেলে যদি হারাতে ইচ্ছে হয়

 

 

৫.

হারাতে চাই না এই কান্না- তাই হারতে চাই

রোদ পড়ে বাতাবি ছাতায়
বাতাবি ছাতায় বৃষ্টি পড়ে

অসুখের মতো
ফোটে
নার্সের কুঁড়ি
হাওয়ার চোখে
জল এসে যায়

হারাতে চাইনা এই কান্না- তাই হারতে চাই
সুন্দরকে জিতে নেওয়ার পর
শুনেছি অনুষ্কা চুম্বক নাকি নষ্ট হয়ে যায়

 

 

৬.

সামান্য একটি মুখ ছাড়া- কিছুই তো নেই আমার কাছে
না হাত না পা না নাভি না কোমর না আঙ্গুল না নখ
না জিন্স না টপ না ওড়না না সালোয়ার না রিস্ট ওয়াচ না রুমাল না জুতো
না গলার পেন্ডেন্ট না হাতের ব্রেসলেট না পায়ের কালো কার

সামান্য একটি মুখ ছাড়া- কিছুই তো নেই আমার কাছে
না হৃদয় না ভালোবাসা না ছায়া

শুধু একটি মুখ
শুধু একটি মুখ মানে মাথাভর্তি শ্যাম্পু পিচ্ছিল স্রোত — কপালের পাকা গমক্ষেত — গাংচিলের ছড়ানো ডানার মতো ভুরুর বৃত্তচাপ — মাঝখানে আলতো টিপপোকা

শুধু একটি মুখ মানে অজস্র জাহাজ নিখোঁজ চোখ– একটি নাক — কানের ইয়ার রিং আর মেটাফিজিক্যাল হাসি

একটা হাঁচি — দু’তিনটে ঢেকুর — কয়েকটা হাই — একটি মুখ মানে তাও তো

কি নেই আমার কাছে – সামান্য কিছু ছাড়া

অনুষ্কা
আমার কাছে আছে আপনার অসামান্য
অহংকার

 

 

 

৭.

ভুলে থাকা যায় না – তাই মনে ধরে রাখি

সিনিক সময়ের ভেতর
চাঁদ গর্জন করে -শুকনো সমুদ্রে ওঠে ঢেউ

ঘূর্ণির ভেতর হাত ডুবিয়ে বুঝি -আমার চেয়ে কত একা তারাদের ক্লোন

আমি বিড়বিড় করে বলি-
আগুন আমায় পোড়ায় না আর ও আইসক্রিম আমাকে পোড়াও

অনুষ্কা
নিজেকে ভালোবাসি ব’লে ভালো না বেসে পারি না আপনাকে
আর আপনাকে ভালোবাসি ব’লে
ইচ্ছে হয় না কাউকে ঘৃণা করি

 

 

 

৮.

যাকে ছুঁতে চাই তার থেকে দূরে থাকা ভালো
যাকে যত ছুঁতে চাই তার থেকে তত দূরে থাকা ভালো

সূর্য উঠছে
সূর্য নামছে
এই তো সেই যন্ত্রণাদায়ক আনন্দ

সুন্দর দেখেছি
তাই আমি জীবনবাদী
কাছে যাবার স্বপ্ন দেখতেও ভয় করে অনুষ্কা
পাছে আমার কান্না মরে যায়

Facebook Comments

Hits: 315

Related posts

Leave a Comment