পিনা পিক্কোলো’র কবিতা

অনুবাদঃ অনিমিখ পাত্র কবি পরিচিতিঃ  গুরুত্বপূর্ণ দ্বিভাষিক (ইতালিয়ান ও ইংরাজি) কবি-অনুবাদক-সম্পাদক-সংগঠক পিনা পিক্কোলোর জন্ম ১৯৫৬। তাঁর পরিবারে রয়েছে বারংবার অভিবাসনের ইতিহাস। উচ্চশিক্ষা আমেরিকায়, ১৯৭০-এর উত্তাল রাজনৈতিক পরিস্থিতি ছাপ ফেলে তাঁর চেতনায়। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়িয়েছেন ইতালীয় ভাষাসাহিত্য। দারিও ফো’র ওপরে করেছেন মৌলিক গবেষণা। ২০০৩ সাল থেকে পাকাপাকিভাবে ইতালির বাসিন্দা। তাঁর কাব্যসংকলন I canti dell’Interregno প্রকাশিত হয়েছে ২০১৮য়। এছাড়াও তাঁর কবিতা নানান আন্তর্জাতিক সাহিত্যপত্রে এবং সংকলনগ্রন্থে রকাশিত হয়েছে। তিনি প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক The Dreaming Machine এবং La Macchina Sognante নামক দুই যমজ সাহিত্যজার্নালের।  কবিতা তাঁর কাছে একইসঙ্গে ব্যক্তিগত ও সামাজিক প্রকাশ। ভীষণরকম রাজনৈতিক…

Read More

লুসিয়া কুপার্তিনো’র কবিতা 

মূল ইতালিয়ান থেকে ইংরাজি ভাষান্তরঃ পিনা পিক্কোলো। বাংলা অনুবাদঃ অনিমিখ পাত্র।   কবি পরিচিতিঃ লুসিয়া কুপার্তিনো’র জন্ম ১৯৮৬, ইতালির এক সৈকতশহরে। তিনি একজন সাংস্কৃতিক নৃতত্ত্ববিদ, কবি (ইতালিয়ান ও স্প্যানিশ) ও অনুবাদক। বর্তমানে থাকেন কলম্বিয়ায় যেখানে তিনি পরম্পরাগত দেশীয় কৃষিপদ্ধতি এবং পরিবেশবান্ধব জীবনযাত্রার ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন। ইতালীয় সাহিত্য জার্নাল Nuovi Argomenti, Fili d’aquilone, Iris di Kolibris ইত্যাদিতে কবি, সমালোচক ও অনুবাদক হিসেবে অংশ নিয়ে থাকেন। তিনি La Macchina Sognante এর একজন প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং একজন বর্তমান সম্পাদক যার ফোকাস বিশেষত দক্ষিণ ও মধ্য আমেরিকা, দেশীয় জনগোষ্ঠী, চিরাচরিত কৃষি ও গাছপালা এবং…

Read More

নিঘাত সাহিবার কবিতা

    নিঘাত সাহিবা পরিচিতিঃ  পৃথিবীর সবচেয়ে পীড়িত জায়গাগুলির অন্যতম – কাশ্মীরে জন্মগ্রহণ করে নিঘাত সাহিবা হয়ে উঠেছেন এই পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নিজের স্বর খুঁজতে থাকা মহিলাদের মূর্তকন্ঠ প্রতিনিধি। দর্শকদের শান্তি দেবে ভেবে যা সব চকচকে আর ঝকমকে জিনিষপত্র সাজিয়ে রাখা হয়েছিল, নিঘাতের কবিতার ক্যানভাস সেইসবের পেছন থেকেই যাবতীয় পচা আর দূষিতকে তুলে এনে দেখিয়ে দেয়। পেশায় শিক্ষক এই কবির কাশ্মীরি কবিতার সংকলন ‘ফ্যাকাশে পাতার স্তূপ’ ( Zard Paneki Dair ) ২০১৭ সালের সাহিত্য অকাদেমি যুব পুরস্কারে সম্মানিত হয়। তিনি ২০১৪ তে উর্দু কবিতার জন্য ‘আকবর জৈনপুরী মেমরিয়াল অ্যাওয়ার্ড’ এবং ২০১৮…

Read More

মারিয়া ভেজ্জালি’র কবিতা

ইংরাজি ভাষান্তরঃ পিনা পিক্কোলো বাংলা অনুবাদঃ অনিমিখ পাত্র কবি পরিচিতিঃ পুরস্কার বিজেতা প্রখ্যাত কবি ও অনুবাদক মারিয়া লুইসা ভেজ্জালির জন্ম ১৯৬৪ সালে, ইতালির বোলোগনা শহরে। তিনি এখানেই এক উচ্চবিদ্যালয়ে সাহিত্য পড়ান। তিনি আদ্রিয়ান রিচ এবং লোরান্ড গ্যাসপার এর ইতালীয় অনুবাদক। তিনি সেন্ট-জন পার্স এর ‘আনাবাসি’র সম্পাদিকাও। দীর্ঘ তিরিশ বছরে প্রকাশিত হয়েছে মারিয়ার অনেকগুলি কবিতার বই – :  L’altra eternità (1987), Eleusi marina (1992), dieci nell’uno (2004) lineamadre (2007, এই বইটির জন্য পেয়েছেন মর্যাদাপূর্ণ ‘মন্তানো পুরস্কার’), Forme implicite (2011)। এইসমস্ত কাব্যগ্রন্থে কবির নিরাভরণ কবিতাগুলি, অনেকসময়ই যা পরীক্ষা-নিরীক্ষামূলক বৈশিষ্ট্যে ভরা, আলোকপাত করে…

Read More

মার্টিন এস্পাদা’র কবিতা

মার্টিন এস্পাদাঃ  ১৯৫৭ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকলিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন মার্টিন এস্পাদা। ১৯৮২ সালে তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘দা ইমিগ্রান্ট আইসবয়’স বোলেরো’ প্রকাশিত হয়। ‘সিটি অফ কাফিং অ্যান্ড ডেড রেডিয়েটরস’, ‘ইমাজিন দা এঞ্জেলস অফ ব্রেড’, ‘আলাবাঞ্জা’ তাঁর উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ। সম্পাদনা করেছেন  ‘এল কোরোঃ এ কোরাস অফ ল্যাটিনো অ্যান্ড চিখানা পোয়েট্রি’ এবং ‘পোয়েট্রি অফ ব্রেডস’ নামে দুটি উল্লেখযোগ্য সংকলন। মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকার বিশেষ করে পুয়ের্তো রিকোর বিভিন্ন অনুষঙ্গ উঠে আসে এস্পাদা’র কবিতায়। দীর্ঘদিন আমেরিকায় বসবাসকারী সংখ্যালঘু শ্রমিকদের অভিবাসনের আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি এবং আইনি পরামর্শদাতা হিসেবেও কাজ করেছেন। আমেরিকার শ্রমজীবী মানুষদের…

Read More

চাংরু হো’র কবিতা

চাংরু হো – তরুণ দ্বিভাষিক কবি ও অনুবাদক। লেখেন মাতৃভাষা চাইনিজ ও ইংরেজিতে। জন্ম চিনদেশের এর সাংহাই শহরে। বর্তমানে আমেরিকার অ্যালাবামা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রিয়েটিভ রাইটিং এ মাস্টার্স পড়ছেন। ছদ্মনাম সিহো হো নামেই মূলত লেখা ও অনুবাদের কাজ করে থাকেন। চারটি অনুবাদের বই প্রকাশ পেয়েছে। তার কবিতা প্রকাশিত হয়েছে ‘পিপল সে’ এবং অন্যত্র। মূল মান্দারিন ভাষায় লেখা কবিতাগুলির ইংরাজি করেছেন কবি নিজেই। কিছু কবিতা সরাসরি ইংরাজিতে লেখা হয়েছে। সেখান থেকে বাংলায় অনূদিত হল। রচনাকালঃ ২০০৪-২০১৫।   উপহার আজকের উপহার এই গাছের চোখগুলো যা আমাকে ধীর গভীর একটা জগত এনে দেয় পার্সিমন এর…

Read More

রঞ্জক

লেওঁ গোঁত্রঁ দামাস অনুবাদ : বিকাশ গণ চৌধুরী ___________ ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফরাসি উপনিবেশ গিয়্যেনার কায়েন-এ ১৯১২ সালে এক মুলোট্টা পরিবারে লেওঁ গোঁত্রঁ দামাস-এর জন্ম, যাঁর মধ্যেসংমিশ্রণ ঘটেছিল রেড ইন্ডিয়ান, ইয়ুরোপীয়এবং ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান রক্তের । দামাসের পড়াশোনা মার্তিনিকের এক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে;পরে তিনি প্যারিসে গিয়ে আইন পড়া শুরু করেন । এরপর পারিবারিক মাসোহারা বন্ধ হয়ে গেলে নানানরকমের কাজ করে তাঁকে জীবিকা নির্বাহ করতে হয় । ছিলেন নেগ্রিচ্যুড কাব্য আন্দোলনের অন্যতম হোতা, তাঁর প্রথম বই ‘রঞ্জক’, যাকে কবিতায় লেখা নেগ্রিচ্যুডের ইস্তাহারও বলা হয়; এখানে রইল সেই বইয়ের পাঁচটি কবিতা। ওরা আজ সন্ধ্যায় এসেছিল…

Read More